October 23, 2019

দুদক কে এখন আর কেউ দন্তহীন বাঘ বলার সাহস পায় না। -ড. মোঃ মোজাম্মেল হক খান, দুদক কমিশনার।

দুসস ডেস্কঃ নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জ উপজেলা মিলনায়তনে দুর্নীতি দমন কমিশনের উদ্যোগে উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন দপ্তরের সরকারি পরিষেবা নিয়ে গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়। গণশুনানিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুদক কমিশনার ড. মোঃ মোজাম্মেল খান বলেন, এখন দুদককে আর কেউ দন্তহীন বাঘ বলার সাহস পায় না। এর কামড় দেওয়া লাগে না। নখের আঁচড়েই দুর্নীতিবাজরা ক্ষত-বিক্ষত হচ্ছে। সাধারণ মানুষের উপকারের জন্যই দুদক এতো কঠোর হচ্ছে।

তিনি বলেন, এই এলাকায় জমি-জমা সংক্রান্ত অপরাধই বেশি । জমি-জমার অপরাধ জগতের সাথে যে বা যেসব কর্তাব্যক্তিরা জড়িত আছেন তারা সাবধান হোন। কেউ-ই ছাড় পাবেন না। আমাদের এই বার্তাকে কথার হুঙ্কার মনে করবেন না। ভুল করলে চড়া মূল্য দিতে হবে। মনে রাখবেন দুর্নীতি সংক্রান্ত অপরাধ কখনই তামাদি হয় না। আমরা সরকারে ঘোষিত দুর্নীতির বিরুদ্ধে শূণ্য সহিষ্ণুতার নীতি বাস্তবায়ন করবই । এটাই আমাদের দৃঢ় অঙ্গীকার।

তিনি বলেন আজকের গণশুনানি প্রতিটি অভিযোগ শুনা হবে। এবং প্রতিটি অভিযোগ নিষ্পত্তি করা হবে। সরকারি কর্মকর্তারা পরিষেবা প্রদানের ক্ষেত্রে ঘুষ দাবি করলে কমিশনকে জানাবেন। কমিশন ফাঁদ পেতে এদেরকে গ্রেফতার করবে।

এসময় উপজেলা পোস্ট অফিস, উপজেলা পরিষদ,পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, সাব-রেজিস্ট্রারের কার্যালয়, প্রাণিসম্পদ বিভাগ, নির্বাচন কমিশন, আনসার ও ভিডিপি অফিস, সকহারী কশিনার (ভূমি) অফিস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়, ভূমি হুকুম দখল কার্যালয়ের বিভিন্ন অনিয়ম, সেবা প্রদানে দীর্ঘসূত্রিতা ও হয়রানির প্রায় ১১০ টি অভিযোগ উত্থাপিত হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বাবুর্চি আঃ গনি -এর বিরুদ্ধে চিকিৎসা সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে অনৈতিকভাবে অর্থ গ্রহণের অভিযোগের বিষয়টি আমলে নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে তাকে বদলির নির্দেশ দেন দুদক কমিশনার। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আঃ গনিকে ৭ দিনের মধ্যে বদলি করবেন মর্মে প্রকাশ্যে অঙ্গীকার করেন। এছাড়া পল্লীবিদ্যুৎ, ভূমিসহ অধিকাংশ অভিযোগ দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশ দেন কমিশনার। বেশকিছু অভিযোগ তাৎক্ষণিকভাবে নিষ্পত্তিও করা হয়।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখে সাবেক সংসদ সদস্য কে এম সফিউল্লাহ, নারায়নগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোঃ জসিমউদ্দীন, পুলিশ সুপার হারুণ অর রশীদ, দুদক পরিচালক মোঃ আক্তার হোসেন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *