May 28, 2022, 6:53 pm

তথ্য ও সংবাদ শিরোনামঃ
দুমকিতে ডিভোর্স দেওয়ায় ঘুমন্ত স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারলেন স্বামী বাউফলে অলৌকিক শক্তিতে মিলে হাড়ি ভর্তি সোনা, প্রতারক আটক! পটুয়াখালীতে ২ মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ; গুরুতর আহত স্কুল শিক্ষক ! পেকুয়া থানার মগনামা হতে কুখ্যাত সন্ত্রাসী শাহাব উদ্দিনকে আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবারুদসহ গ্রেফতার। ভালুকায় অজ্ঞাত তরুণীর লাশ উদ্ধার “বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ” বিএনপি জামাতের পৃষ্ঠপোষক! বেনাপোলে ব্যাগেজ তল্লাশি করে ৩০ কোটি টাকার ভারতীয় পণ্য আটক। ময়মনসিংহের ভালুকার তামাট বাজারে আগুনে ভস্মীভুত হলো ৮টি দোকান, রাস্তা বেহাল হওয়ায় পৌঁছতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা কলাতলী থেকে দুইজন ছিনতাইকারী আটক। ভালুকায় ভূমি সেবা সপ্তাহ পালিত বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট স্হল বন্দর মাঙ্কি পক্সের সংক্রমণ ঠেকাতে সতর্ক। যশোর পঙ্গু হাসাপাতালে কালীগঞ্জের ব্যবসায়ী মফিজুর রহমানকে হত্যা, ময়নাতদন্ত রিপোর্ট। বেনাপোল সীমান্তবর্তী অভিযান এ ৫টি বিদেশি পিস্তল ৫ রাউন্ড গুলি অস্ত্র ব্যবসায়ী পিতাপুত্রও গ্রেফতার। যশোর বহুল আলোচিত পঙ্গু হাসপাতাল ব্যবসায়ী মফিজুর রহমান হত্যার ঘটনা। টেকনাফের নয়াপাড়া সদর ২,০০০ পিস ইয়াবাসহ তিনজন গ্রেফতার। ভালুকায় ৬ তলা স্কুল ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন যশোরের চৌগাছা সীমান্ত থেকে ১২৪ পিস স্বর্ণের বার সহ শাহ আলম নামে চোরাকারবারিকে আটক। ভালুকায় বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্টের চুড়ান্ত প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত প্রবাসীরা সহজেই দেশের যেকোনো ব্যাংকে বিদেশি মুদ্রার হিসাব খুলতে পারবেন। চেইন্দা এলাকায় ২০,০০০ পিস ইয়াবাসহ একজন’ কে গ্রেফতার। রামুর চেইন্দা এলাকায় ১৪৭৫ পিস ইয়াবা সহ তিনজনকে গ্রেফতার। ইহলোক ছেড়ে চলেগেলেন বরেণ্য গীতিকার, সাংবাদিক, কলামিস্ট আবদুল গাফফার চৌধুরী ভালুকায় জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার ৪২ তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন । যশোর সিভিল সার্জন কার্যলয়ের প্রসাসনিক কর্মকর্তার ঘুষ বানিজ্যে অতিষ্ঠ সেবা প্রত্যাশীরা। যশোর চিকিৎসা প্রতারণা ও অবৈধভাবে ঔষধ তৈরির দায়ে এক লাখ টাকা জরিমানা বিনাশ্রম কারাদ। ভবন নির্মাণে বেঁচে যাওয়া ৪ কোটি ৩০ লাখ টাকা ফেরত দিলো ‘কউক’ চেয়ারম্যান। এনায়েত উল্লাহ আব্বাসীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের। বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ডাঃ শামশুল হুদা চৌধুরীকে কক্সবাজার সোনালী ব্যাংক শাখার সম্বর্ধনা। ভালুকায় শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

স্বপ্নের মেট্রোরেলের প্রথম নমুনা কোচ ঢাকায়।

স্বপ্নের মেট্রোরেলের প্রথম নমুনা কোচ ঢাকায়।

উত্তরার দিয়াবাড়িতে মেট্রোরেলের ডিপোর পাশে ভিজিটর সেন্টার নির্মাণের কাজ প্রায় শেষের দিকে। এমআরটি তথ্য ও প্রদর্শন কেন্দ্রের ভেতরেই রাখা হবে নমুনা ট্রেনটি। সেখানেই দর্শনার্থীদের টিকিট কাটা, ট্রেনে চড়া, দাঁড়ানো, ট্রেন থেকে নামা- এসব বিষয়ে ধারণা দেওয়া হবে।

রাজধানীবাসীর স্বপ্নের মেট্রোরেলের প্রথম নমুনা কোচ ঢাকায় পৌঁছেছে। উত্তরার দিয়াবাড়িতে মেট্রোরেলের ডিপোতে কনটেইনার থেকে বের করা হয়েছে কোচ। এই কোচ দিয়েই মানুষকে মেট্রোরেলে চড়ানো শেখানো হবে। তবে নমুনা কোচ হওয়ায় মূল পরিবহন বহরে এটি যুক্ত হবে না।

প্রদর্শনীর জন্য কোচটি আগামী মাস থেকেই উন্মুক্ত করা হবে। আর যাত্রীবাহী মেট্রোরেলের মূল কোচগুলো ১৫ জুন বাংলাদেশে এসে পৌঁছাবে বলে জানান ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক।

তিনি বলেন, ‘গত একবছর ধরে জাপানে এগুলো তৈরি করা হয়েছে। দেশে আসার পর এগুলো অপারেশন কন্ট্রোল সেন্টারের (ওসিসি) সঙ্গে মিলে চলতে পারছে কিনা তার জন্য ট্রায়াল রান দেওয়া হবে।’

এমএএন ছিদ্দিক বলেন, ‘কোচটি জাপানের মিৎসুবিশি ও কাওয়াসাকি থেকে তৈরি করে আনা হয়েছে। এই কোচ শুধু প্রদর্শন করা হবে, যুক্ত হবে না যাত্রী পরিবহন বহরে। মূল কোচগুলো যে উপাদান দিয়ে যেভাবে তৈরি করা হবে এটিও সেভাবেই তৈরি হয়েছে। উত্তরায় মেট্রোরেলের যে তথ্যকেন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে সেখানে এটি সাধারণ মানুষের দেখার ও শেখার জন্য প্রদর্শিত হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘উত্তরার দিয়াবাড়িতে মেট্রোরেলের ডিপোর পাশে ভিজিটর সেন্টার নির্মাণের কাজ প্রায় শেষের দিকে। এমআরটি তথ্য ও প্রদর্শন কেন্দ্রের ভেতরেই রাখা হবে নমুনা ট্রেনটি। সেখানেই দর্শনার্থীদের টিকিট কাটা, ট্রেনে চড়া, দাঁড়ানো, ট্রেন থেকে নামা- এসব বিষয়ে ধারণা দেওয়া হবে।’

২০২১ সালে বিজয়ের মাসে রাজধানীর মানুষ প্রথম মেট্রোরেলে উঠবে বলে আশা প্রকাশ করেন ডিএমটিসিএলের ম্যানেজিং ডিরেক্টর। তিনি বলেন, ‘সেই লক্ষ্যমাত্রা মাথায় রেখেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। দেশে আসা মেট্রোরেল ট্রেন সেট জাতীয় পতাকার রঙে সাজানো থাকবে।’

মেট্রোরেলের প্রতি র‍্যাকে ১ হাজার ৭৩৮ জন যাত্রীর পরিবহন করবে। তবে বেশিরভাগ যাত্রীকে দাঁড়িয়ে যেতে হবে। দাঁড়ানোর জন্য সুব্যবস্থা থাকবে ট্রেনের ভেতর। প্রতিটি কোচের দু’দিকে চারটি দরজা থাকবে। ট্রেনে সিটের ধরন হবে লম্বালম্বি এবং প্রতিটি ট্রেনে থাকবে দু’টি হুইলচেয়ার পাশাপাশি রাখার ব্যবস্থা। প্রতিটি ট্রেনের ছয়টি কোচের মধ্যে একটি কোচ শুধু নারীদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে।’

আমাদের প্রকাশিত তথ্য ও সংবাদ আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




All Rights Reserved: Duronto Sotter Sondhane (Dusos)
Design by Raytahost.com