September 25, 2022, 8:00 pm

তথ্য ও সংবাদ শিরোনামঃ
পবিপ্রবিতে মাদকমুক্ত দেশ গঠনে ছাত্র-শিক্ষকের ভূমিকা শীর্ষক মতবিনিময় গর্ভধারিণী মাকে খুঁজপেতে দেওয়ালে মায়ের সন্ধান চেয়ে পোস্টার লাগাচ্ছেন ছোট ছেলে। যশোরের শার্শা ও বেনাপোল পোর্ট থানার যৌথ উদ্যোগে ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠান। যশোরের বেনাপোল চেকপোস্ট সীমান্তে ১ লক্ষ ৭০ হাজার ইউএস ডলার সহ দুই পাসপোর্ট যাত্রী আটক। ভালুকায় নারীসহ শ্রমিকলীগ নেতা আটক চরগরবদি চরাঞ্চলে লাঠিয়াল বাহিনীর তান্ডব ৫একর জমির রোপা আমনের ক্ষেত বিনস্ট বাবার লাশ বাড়িতে রেখে পরিক্ষার হলে আবু হানিফ ভালুকায় মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয় ছয় বাংলাদেশিকে তিন বছর পর বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে ভারতীয় পুলিশ। যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে টাকায় চলে রোগীদের ট্রেচার ট্রলি ও হুইল চেয়ার ভাড়া বাণিজ্যে। জাহাজ থেকে সার চুরির ঘটনায় ৯ জন গ্রেপ্তার। যশোরের শার্শা সীমান্ত থেকে ১৫ পিস স্বর্ণের বারসহ এক স্বর্ণ পাচারকারী আটক। ঈশ্বরদীর দাশুড়িয়া পল্লী বিদ্যুতের শাখা কার্যালয়ে ঘুষের টাকা নেওয়া সেই ডিজিএম সাময়িক বরখাস্ত। যশোরের লাউজানি ধান ক্ষেত থেকে সাবেক (ইউপি) সদস্যের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। দুমকি দলিল লেখক সমিতির নব গঠিত কমিটির পরিচিতি সভা ও শপথ অনুষ্ঠান ভালুকায় নদী থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার বেনাপোল বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেনে তল্লাশি কে কেন্দ্র করে বিজিবি ও রেল পুলিশ সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষে। ভালুকায় বাসচাপায় বাইকচালক নিহত দুমকিতে কলেজ গভর্ণিং বডির নব-নিযুক্ত সভাপতিকে নাগরিক সংবর্ধনা ভালুকায় বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ বেনাপোল পুটখালী সীমান্তে ভারতে পাচারের সময় দুই কোটি টাকা মূল্যের ২০টি সোনার বারসহ আটক এক। ভালুকায় কৃষকের শতাধিক পেঁপে গাছ কর্তন ভালুকায় ট্রাইবাল ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের পরিচিতি শপথ পাঠ অনুষ্ঠিত ভালুকায় ৩ লাখ টাকার অবৈধ জাল জব্দ ভালুকায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত যশোরের বেনাপোল ৫ হাজার পিস ইয়াবা, ৪ কেজি গাঁজা ১০০ বোতল ফেনসিডিল সহ পাচারকারী আটক। কোলকাতা খুলনা বন্ধন এক্সপ্রোস ট্রেনে অভিযান চালিয়ে ১০ লাখ টাকার নিষিদ্ধ পন্য জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা। ভালুকায় জননেত্রী শেখ হাসিনা সংগ্রহশালা’র শুভ উদ্বোধন বেনাপোল পোর্ট থানার রঘুনাথপুর সীমান্ত পাশ থেকে অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে পাচার হওয়া ৭ নারীকে ৩ বছর পর হস্তান্তর করেছে ভারতীয় পুলিশ।

যশোরের শার্শায় অস্বাস্থ্যকর নোংড়া পরিবেশে চলছে আলমদিনা ক্লিনিকের কার্যক্রম।

যশোরের শার্শায় অস্বাস্থ্যকর নোংড়া পরিবেশে চলছে আলমদিনা ক্লিনিকের কার্যক্রম।

নিজস্ব প্রতিনিধি যশোর। দেশজুড়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চালানো অবৈধ্য তথা নিবন্ধনহীন, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ ও নিয়ম বহিভূর্তভাবে পরিচালিত বেসরকারী ক্লিনিক ও ডায়গণস্টিক সেন্টার বন্ধের অভিযানের মুখেও থেমে নেই শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়ায় অবস্থিত আলমদিনা ক্লিনিকের রমরমা ব্যাবসা। অস্বাস্থ্যকর নোংড়া পরিবেশ, সার্বক্ষনিক রেজিস্টার্ড চিকিৎসক ছাড়াই ক্লিনিক পরিচালনা, অদক্ষ নার্স ও টেকনিয়াস দিয়েই ডায়গণস্টিক কার্যক্রম পরিচালনা, অনুমোদনের বাইরে ক্লিনিকে একাধিক রোগী ভর্তিসহ বিবিধ অনিয়মের মধ্য দিয়েই ক্লিনিক ব্যবসা চালিয়ে অল্পসময়ে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনেছেন প্রতিষ্ঠানএর মালিক। সিজার পরবর্তী সময়ে প্রয়োজনীয় ঔষধের স্থলে কম দামের ঔষধ প্রয়োগকরে রোগী ঠকানোরমত গুরুতর অভিযোগ রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে।

অভিযোগের সত্যতা যাচায়ে গত বৃহষ্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকালে গণমাধ্যমকর্মীদের একটি অনুসন্ধানীদল সরেজমিনে গিয়ে নোংড়া ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের সত্যতা পাই ও তা ক্যামেরায় ধারন করে।এ সময় ক্লিনিকে কোন ডিগ্রিধারী ডাক্তার পাওয়া যায়নী বলে জানা গেছে। ক্লিনিকটিতে ভর্তিরত রোগীদের সাথে কথা বললে তারা জানাই সপ্তাহে ২দিন বড় ডাক্তার আসেন বাকী চিকিৎসা নার্সরা দেখেন। সাংবাদিকদের উপস্থিতি দেখে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ সটকে পড়ে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঐ ক্লিনিকে চিকিৎসারত এক রোগী জানান, এখানে রোগী সেবা কার্যক্রম অত্যান্ত নিন্মমানের। ভর্তি হওয়ার সময় অনেক সুবিধার প্রলোভন দেখালেও সিজার শেষ হলে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ এক প্রকার জিম্মিকরে চুক্তির দ্বিগুন টাকা হাতিয়ে নেয়। অভিযোগের বিষদ জানিয়ে বিবৃতি নিতে মুঠোফোনে প্রতিষ্ঠানএর মালিকের সাক্ষাত চাইলে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন। পরবর্তী সময়ে সংবাদ প্রকাশ না করেতে মুঠোফোনে নিজে ও লোকমারফত যোগাযোগ করেন বলে আরো জানা যাই। স্থানীয়রা জানান,অব্যবস্থপনা ও নিবন্ধনহীনভাবে ক্লিনিকে স্বাস্থ্য সেবা পরিচালনার দায়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অভিযানে প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করা হলেও পরবর্তীসময়ে স্থান পরিবর্তন করে প্রতিষ্ঠানটি পুনরায় চালু করেছেন আলমদিনার স্বত্তাধিকারী কামরুজ্জামান।

এ বিষয়ে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোঃ ইউসুফ আলী জানান স্বাস্থ্য বিভাগের অভিযানে প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করা হয়েছিলো। পরবর্তী সময়ে নিবন্ধনের আবেদন করলে স্বাস্থ্য বিভাগের দায়িত্বরতরা প্রতিষ্ঠানটি ইনেস্পেকশন করেছিলো বলে জানা আছে। স্বাস্থ্য বিভাগের নিদের্শনার ব্যতিতো ঘটিয়ে কোন ক্লিনিক বা ডায়গনস্টিক সেন্টার কার্যক্রম পরিচালনা করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গনমাধ্যমকর্মীদের এক প্রশ্নের জবাবে যশোর জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ বিল্পব কান্তি বিশ্বাস জানান, অনুমোদনহীন এবং অভিযুক্ত সকল বেসরকারী ক্লিনিক ও ডায়গণস্টিক সেন্টারে স্বাধ্যঅধিপ্তরের নির্দেশ মোতাবেক অভিযান চলছে ও তা অব্যাহত থাকবে বলে জানান।

আমাদের প্রকাশিত তথ্য ও সংবাদ আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




All Rights Reserved: Duronto Sotter Sondhane (Dusos)
Design by Raytahost.com