June 18, 2024, 4:34 pm

তথ্য ও সংবাদ শিরোনামঃ
শতভাগ বেতন-বোনাস নিশ্চিত করল ময়মনসিংহ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ ভালুকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ ঈদ যাত্রা নিরাপদ করতে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে, সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী লায়ন মো: গনি মিয়া বাবুল বঙ্গবন্ধুর আদর্শের জাগ্রতপ্রাণ সিএমপির আকবরশাহ্ থানার অভিযানে মাদক মামলায় গ্রেফতার ০১ ফেনীর খামার থেকে ১৩ গরু লুটে জড়িত দুজন চট্টগ্রামে গ্রেপ্তার। চবিতে নির্জন জায়গায় ছিনতাইয়ের কবলে বিএমএ শিক্ষার্থী। ত্বক ছাড়াও শরীরের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খাবার শশা পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে লায়ন গনি মিয়া বাবুল এর শুভেচ্ছা ভালুকায় ২টি চোরাই পিকাপ গাড়ীসহ চক্রের ৫ সদস্য আটক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষক চিকিৎসক-ছাত্র ছাত্রীদের মিলনমেলা। ঈদুল আজহায় যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি ভাড়া আদায় করলে পরিবহন মালিক ও সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শিশুদেরকে দেশীয় ফল খাওয়ার প্রতি উৎসাহিত করতে হবে, লায়ন গনি মিয়া বাবুল সবার উপরে মায়ের আঁচল তাহার উপরে নাই ২ নভেম্বর বীর মুক্তিযোদ্ধা আহসান উল্লাহ মনি স্বদেশ বিচিত্রা সম্মাননায় ভূষিত হবেন। প্রশাসনে নীতি বাস্তবায়নে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের লোক না রাখতেই মুক্তিযোদ্ধা কোটার বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছে স্বাধীনতা বিরোধীরা কুলাউড়া বিএনপির ৩ নেতার মুক্তি। এড আবেদ রাজার অভিনন্দন। ত্রিশালে দস্যুতা মামলার ৬ আসামী গ্রেফতার সহ গাড়ি উদ্ধার ভালুকায় ভূমিসেবা বিষয়ক জনসচেতনতামূলক সভা শরীয়তপুরে ২০৯টি পরিবারসহ সারাদেশে ৫ম ধাপে ১৮,৫৬৬ পরিবারকে জমি ও গৃহ হস্তান্তর করলেন প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সোয়া তিন কোটি টাকার উন্নয়ন কাজে ঘুষ দিতে হয়েছে ৬১ লাখ টাকা! কৃষক-শ্রমিক-মেহনতি মানুষের কল্যাণে এই বাজেট নয়, তৈমুর আলম খন্দকার ঝড়ো হাওয়ায় মরা গাছের ডাল ভেঙে পড়ে পথচারীর মৃত্যু। গলি থেকে রাজপথ বৃটেনের প্রধান মন্ত্রীর স্ত্রীর উত্থানের নেপথ্যে এক বাঙালি মহিলার অবদান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে মহৎ ব্যক্তিদের মিলনমেলা ২০২৪-২৫ সালের জাতীয় বাজেট প্রসঙ্গে একটানা ৩ দিন বৃষ্টির পূর্বাভাস আঁধারে আলো, অর্পিতার অন্ধকার থেকে আলোয় ফেরার ইতিহাস বাংলাদেশের উপকূল অঞ্চল রক্ষায় টেকসই বেড়িবাধ ও সবুজ বেষ্টনী এবং ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত ত্রিশাল থানা পুলিশের অভিযানে ০৩টি চোরাই গরুসহ গ্রেফতার ৩

চোখের জলে ভাসিয়ে দেওয়া বাংলার স্মৃতি

চোখের জলে ভাসিয়ে দেওয়া বাংলার স্মৃতি

ঋতম্ভরা বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা প্রতিনিধি: স্মৃতি তুমি বেদনারআজিও কাঁদিছে হারানো স্বপনহৃদয়ের বেদিকায় আমার নাম ঋতম্ভরা  বন্দ্যোপাধ্যায়। আমার এবং আমার বাবার স্বাধীনতার পর এপারে জন্ম হলেও আমার আত্মিক সম্পর্ক রয়েছে আজকের বাংলাদেশের সঙ্গে। এই সম্পর্ক বহু যুগের। আমার ঠাকুরদার চৌদ্দ পুরুষের বাস্তু ভিটে ছিল ফরিদপুরের মাদারীপুর জেলার পাচ্চর বরমগঞ্জের কুমেরপাড় গ্রামে।

আমার ঠাকুমার জন্ম ঢাকা বিক্রমপুরের বাগড়া বাসুদেব বাড়িতে। ঠাকুমার মামা বাড়ি ছিল দিনাজপুরের শিবগঞ্জ এলাকায়। ঠাকুমার মামাতো বোনেরা  থাকতেন লাগোয়া ঠাকুর গাওতে। ঠাকুরমার মামাতো ভাই অজিতেশ ব্যানার্জি ওরফে ভুদুর ছিলেন সেই সময়ের সেরা ফুটবল প্লেয়ার।

দেশ ভাগের অনেক আগে ঠাকুরদা কলকাতার কাছে পানিহাটিতে বেঙ্গল কেমিক্যাল এ চাকুরীতে যোগদান করেন ১৯৪২ সালে। তারপর আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রায়ের সুপারিশে জলপাইগুড়ির চাবাগানে চাকুরি পেয়ে যান কলাবাড়ি চা বাগানের মালিক সত্যেন্দ্র প্রসাদ রায়ের দৌলতে।

ঠাকুরমাও মামা বাড়ি শিবগঞ্জ থেকে কলা বাড়িতে চলে আসেন ঠাকুরমার বাবার কাছে। ঠাকুরমার বাবা চা বাগানের অফিসার ছিলেন। কিছু কালের মধ্যে বাবা মায়ের বিয়ে হয়ে যায়। কিন্তু তখনও দেশ ভাগ হয়নি। প্রতিবছর কয়েকবার বাবা ঢাকা এবং ফরিদপুরে গেছেন গোয়ালন্দ ঘাট পেরিয়ে। কতো গল্প শুনেছি আমার বাবার কাছ থেকে। ঠাকুরদা নাকি বলতেন” চোর চোট্টা খেজুর গুড় তার নাম ফরিদপুর”। কতো বেদনাদায়ক সেই স্মৃতি। শুনলে আমারও চোখে জল চলে আসে।

ঠাকুরদার কাছে শোনা গল্প গুলি সেলুলয়েডের পর্দায় ঘুরে ফিরে আসছে। সবই বাবার কাছে শোনা। 

কোলকাতা থেকে ট্রেনে করে গোয়ালন্দ ঘাটে পৌছুতেই সোরগোল পড়ে যেতো। ঘাটের সংলগ্ন খাবারের দোকানদারেরা ছুটোছুটি করতেন,এমন কি গায়ের জোড়ে হাত ধরে টেনে তাদের দোকানে নিয়ে যাবার চেষ্টা করতেন, ,” আহেন কত্তা, পাকা পায়খানা, খাইবেন ভালো”। শুনেই ঠাকুরমা নাক কুঁচকে বলতেন, ” মাইগ্য মা কী সব বাজে কথা কইতাছে। বাবা বলতেন দেরি কইরো না। তাড়াতাড়ি বসো।” সারা এলাকায় চিৎকারের ভরে উঠতো।

সব দোকানেই ভাত ফুটছে, সব্জি গরম হচ্ছে, মাছের উৎপাদন টগবগ করছে। “আসেন বাবু, বইয়া পড়েন। কী খাইবেন তাড়াতাড়ি কন,স্টিমার ছাইড়া যাইবো”। যথারীতি হাতমুখ ধুয়ে খেতে বসার সঙ্গে সঙ্গে ভাত, ডাল,সব্জি এলো। মাছ তখন ফুটছে। ডাল সব্জি খেতে খেতেই স্টিমারের হুইসেল বেজে উঠলো। চালু দোকানীরা পুরো টাকা আগেই নিয়ে নিয়েছে।

সব খদ্দের ছুটে চলেছেন স্টিমারের দিকে। ঠাকুরদা বললেন, অ্যাই মাছটা দেও। দোকানি বলতো,” “বাবু একটু বইতে হইবো। মাছ সিদ্ধ হইতাছে। ” আবার স্টিমারের ভেঁপু বেজে উঠলো। ঠাকুরদা ও ঠাকুমাকে নিয়ে ছুটলেন। দোকানি আর কাউকেই মাছ দিলো না। ঘাট পেরিয়ে তারপর যখন ঢাকাতে পৌঁছলেন তখন খুব শান্তি পারেন।

ঠাকুরদা বলতেন, ঢাকাই কুট্টি দের কথা। ঘোড়ার গাড়ি দেখে জিজ্ঞাসা করলেন, ” নারায়নগঞ্জ যাইতে কত নিবা? টাঙ্গাওয়ালা বলেন, ” বাবু , আট আনা ভাড়া”। ঠাকুরদা বললেন,” চাইর আনায় যাইবা?” শুনেই কুট্টি গম্ভীর হয়ে ঠাকুরদার কানের কাছে মুখ এনে বললেন,”” কত্তা আইস্তে কন, ঘোড়ায় হাসবো”।

আরেকবার ঠাকুরদা এক অদ্ভুত অভিজ্ঞতা অর্জন করলেন। টাঙ্গাওয়ালাকে বিক্রমপুর যেতে ভাড়া জিজ্ঞাসা করতেই সে বলেছিল, আট আনা। ঠাকুরদা দরদাম করে ছয় আনা বলতেই,সেই কুট্টি টাঙ্গাওয়ালা বললেন,” হইবো ,তবে কত্তা আপনারে টাঙ্গার পিছে পিছে দৌড়াইতে হইবো। মালটা গাড়িতে রাইখতে পারবেন”। ঠাকুরদার মুখ লজ্জায় লাল হয়ে গিয়েছিল। আরেকবার বাজারে সব্জি কিনতে গিয়ে দাম জিজ্ঞেস করতে দোকানি বলেছিলেন, “বাবু ২ আনা সের।” ঠাকুরদা বেগুন তুলে নিয়ে প্রশ্ন করেছিলেন, ” বেগুনে পোকা আছে মনে হচ্ছে।” দোকানি পাশের দোকানের দিকে তাকিয়ে বলে, ” কাশেম হুনছস একজন বাইগনের ডাগডার আইছে। বাইগন তুইলাই কয় পোকা আছে”।

এমন অনেক অনেক মজার কথা শুনেছি,বাবা এবং ঠাকুরদার কাছে। মনটা ভরে ওঠে। চোখেও জল এসে যায়।

সত্যিই সোনার বাংলার নাম সার্থক ।

আমাদের প্রকাশিত তথ্য ও সংবাদ আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




All Rights Reserved: Duronto Sotter Sondhane (Dusos)

Design by Raytahost.com