May 20, 2019

নাঙ্গলকোট উপজেলায় শিশু অপহরণকারী আটক করে জেলখানায় প্রেরণ।

নাঙ্গলকোট উপজেলার মৌকরা ইউনিয়নের ভাসরলংকা গ্রামের বাহরাইন প্রবাসী মোস্তফা কামালের ৯ বছর বয়সি শিশু কন্যা মাহীকে তালাচৌ গ্রামের আবুল কালামের ছেলে পলাশকে অপহরন করার সময় এলাকাবাসী আটক করে। গতকাল (১৯মে) রবিবার সকাল ৭ ঘটিকায় মাহী বাড়ীর সামনে স্কুলের গাড়ীর জন্য অপেক্ষা করছিল, এমন সময় ওৎপেতে থাকা পলাশ ১০ টাকার লোভ দেখিয়ে কৌশলে দোকানে নেওয়ার কথা বলে আড়ালে নিয়ে যায়, এ’সময় একজন পথচারীর বিষয়টি চোখে পড়ে, তিনি শিশুটির অবিভাবককে খবর দেয়। এলাকাবাসীর সহযোগিতায় শিশুটিকে উদ্ধার করে, এলাকাবাসী অপহরকারীকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। জানাজায় পলাশ পূর্বেও তেলপাই গ্রামের এক মেয়েকে অপহরণ করে আটক করে, পরে মেয়েটি পালিয়ে বেঁচে যায়। পলাশের নামে নারী ও শিশু অপহরন মামলা রয়েছে, উক্ত মামলায় সে সাজা পেয়ে জামিনে আছে। তার নামে এলাকায় মাদক ও বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে। আটকের সময় তার সাথে অচেতন করার ঔষধ পাওয়া যায়। নাঙ্গলকোট থানায় আটকের পর ভ্রাম্যমান ম্যাজিস্টেট তাকে ১ বছরের সাজা ও নগদ ১৫০০০/= পনের হাজার টাকা জরিমানা করে কুমিল্লা জেল হাজতে পাঠায়। এই ঘটনা সত্যতা স্বীকার করে নাঙ্গলকোট থানার এস আই দিবাকর বলেন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটিকে নিরাপদে অবিভাবকের হাতে দেয়া হয়েছে। এবং অপহরনকারীকে আটক করে নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা করে থানায় নিয়ে আটক করা হয়। পরে আসামী পলাশের স্বীকারাক্তি ও সাক্ষীদের জবানবন্ধী নিয়ে শিশু অপহরন মামলা দায়ের করা হয়। ম্যাজেস্টেটের মাধ্যমে তাকে সাজা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *